1. news.polytechnicbarta@gmail.com : admin :
  2. contact.mdrakib@gmail.com : Rakib Howlader : Rakib Howlader
  3. tanjid.fmphs@gmail.com : Tanjid : Tanjid
মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ০৮:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
নির্বাচনের কারণে পেছাল ডিপ্লোমা পরীক্ষা, নতুন সূচি প্রকাশ বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স-মাস্টার্স পড়তে পারবেন পলিটেকনিক শিক্ষার্থীরা ‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ কুইজ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী আজিজুল হক সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস শুরু ২৪ মে, হল খুলছে ১৭ মে ২০ লাখ ডোজ টিকা আসছে আজ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং পরীক্ষা শুরু গ্রাফিক আর্টস ইনস্টিটিউটের ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা আন্দোলন-সংগ্রামের মধ্য দিয়েই ভাষার অধিকার অর্জন করতে হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী হল খুলে পরীক্ষা নেবে বাংলাদেশ সুইডেন পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের থিউরিটিক্যালে অটোপাস চেয়ে হাইকোর্টে রিট

প্রকৌশল ও প্রযুক্তি শিক্ষা বোর্ড

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম রবিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১০২ বার পঠিত

তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর নিয়ন্ত্রণ, পরীক্ষা পরিচালনা ও সনদপত্র দেওয়ার জন্য ১৯৫৪ সালে তদানীন্তন বাণিজ্য ও শিল্প বিভাগের ঠরফব জবংড়ষঁঃরড়হ ঘড়. ১৮৮-ওহফ. তারিখ ২৭-০১-৫৪ মোতাবেক ‘ইস্ট পাকিস্তান বোর্ড অব এক্সামিনেশন ফর টেকনিক্যাল এডুকেশন’ নামে একটি বোর্ড স্থাপিত হয়। উদ্দেশ্য ছিল দেশের কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের সংগঠন পরিচালন, তদারকি, নিয়ন্ত্রণ এবং উন্নয়নের দায়িত্ব পালন, পরীক্ষা পরিচালনা, নিয়ন্ত্রণ ও বোর্ড কর্তৃক গৃহীত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ব্যক্তিদের ডিপ্লোমা/সাটির্ফিকেট প্রদান। অতঃপর ক্রমবর্ধমান চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে এবং ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং ও ট্রেডপর্যায়ের পাঠ্যক্রম প্রণয়ন, উন্নয়ন, নিয়ন্ত্রণ, সনদপত্র প্রদান, পরিদর্শন ও মূল্যায়নের জন্য একটি সংবিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান স্থাপনের প্রয়োজনীয়তা অনুভূত হওয়ার ফলে ১৯৬৭ সালের ৭ মার্চ গেজেট নম্বর : ১৭৫ এলএ প্রকাশিত এবং ১ নম্বর সংসদীয় আইনের বলে ‘ইস্ট পাকিস্তান টেকনিক্যাল এডুকেশন বোর্ড’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান স্থাপিত হয়, যার বর্তমান নাম বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড।

 

ডিপ্লোমা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি শিক্ষাক্রম বর্তমান বিশ্বের একটি পেশাভিত্তিক গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষাব্যবস্থা। দেশে দক্ষ জনশক্তি তৈরি করতে ডিপ্লোমা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি শিক্ষার বিকল্প নেই। ডিপ্লোমা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি শিক্ষাটি আমাদের দেশে পরিচালনার জন্য বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের ওপর ন্যস্ত, কিন্তু ওই বোর্ডে ডিপ্লোমা ইন টেকনিক্যাল এডুকেশন, ডিপ্লোমা ইন ভোকেশনাল এডুকেশন, ডিপ্লোমা ইন প্রকৌশল, ডিপ্লোমা ইন টেক্সটাইল প্রকৌশল, ডিপ্লোমা ইন কৃষি, ডিপ্লোমা ইন মৎস্য, ডিপ্লোমা ইন মৎস্য ইন সার্ভিস, ডিপ্লোমা ইন ফরেস্ট্রি, ডিপ্লোমা ইন লাইভস্টক, ডিপ্লোমা ইন ফরেস্ট্রি ইন সার্ভিস, ডিপ্লোমা ইন ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি, ডিপ্লোমা ইন প্রকৌশল (নেভাল স্পেশাল), ডিপ্লোমা ইন প্রকৌশল (আর্মি), ডিপ্লোমা ইন এনিমেল হেলথ অ্যান্ড প্রোডাকশন ইন সার্ভিস, প্রফেশনাল ডিপ্লোমা ইন অটোমোবাইল, এ ছাড়া মেডিকেল বিষয়ে ডিপ্লোমা ইন মেডিকেল টেকনোলজি, ডিপ্লোমা ইন মেডিকেল আলট্রাসাউন্ডসহ প্রায় ৩৪টি শিক্ষাক্রম পরিচালিত হয়, যার ফলে সব কার্যক্রম সঠিকভাবে তাদের পক্ষে পরিচালনা করা সম্ভব হচ্ছে না। যার ফলে বিভিন্ন সময় প্রকৌশল, প্রযুক্তি শিক্ষার মানসহ নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এ সমস্যা থেকে সমাধানের জন্য বাংলাদেশে ডিপ্লোমা পর্যায়ের প্রকৌশল ও প্রযুক্তি দুটি কারিকুলাম নিয়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি শিক্ষা বোর্ড গঠন করা প্রয়োজন। ওই শিক্ষা বোর্ডে ৪ বছরমেয়াদি উ.ঊহম (ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং/প্রকৌশল ডিপ্লোমা), উ.ঞবপয (ডিপ্লোমা ইন টেকনোলজি/প্রযুক্তি ডিপ্লোমা), ১ বছরমেয়াদি উ.ঊফঁ (ডিপ্লোমা ইন এডুকেশন) ও প্রফেশনাল ডিপ্লোমা কারিকুলাম চারটি পরিচালিত হবে। প্রস্তাবিত বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি শিক্ষা বোর্ডে উ.ঊহম, উ.ঞবপয, উ.ঊফঁ ও প্রফেশনাল ডিপ্লোমা ছাড়া অন্য কোনো কোর্স পরিচালনা করতে পারবে না। ফলে বোর্ডের মান সর্বোচ্চ পর্যায় রক্ষা করা সম্ভব হবে। এজন্য ডিপ্লোমা পর্যায়ের সব প্রকৌশল কোর্সের কারিকুলামগুলো অর্থাৎ ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং, টেক্সটাইল, কম্পিউটার, মেরিন, অ্যারোনেটিক্যাল, প্রিন্টিং, গ্লাস সিরামিক, ট্যুরিজমের কোর্সগুলো উ.ঊহম কারিকুলামের আওতাভুক্ত হবে। আর্মি, টেক্সটাইল অথবা মেরিন পৃথক ইঞ্জিনিয়ারিং কারিকুলাম ভুক্ত হতে পারবে না। একইভাবে ডিপ্লোমা পর্যায়ের অন্য কারিকুলামগুলো অর্থাৎ ফিশারিস, কৃষি, এনিমেল হাসবেন্ডারি, ফরেস্ট্রি, কোর্সগুলো উ.ঞবপয কারিকুলামের আওতাভুক্ত হবে। কৃষি, ফরেস্ট্রি পৃথক টেকনোলজি কারিকুলামভুক্ত হতে পারবে না।

 

——

উ.ঊহম কারিকুলামে যেসব বিভাগ থাকবে, তা হলো

 

ক-গ্রুপ (টেক্সটাইল) : টেক্সটাইল অ্যাপারাল ম্যানুফাকচারিং, টেক্সটাইল নিটওয়্যার ম্যানুফাকচারিং, টেক্সটাইল গার্মেন্ট অ্যান্ড ডিজাইন, টেক্সটাইল অ্যান্ড জুট, টেক্সটাইল সিল্ক, টেক্সটাইল ডিজাইন অ্যান্ড প্রিন্টিং, টেক্সটাইল উইভিং, টেক্সটাইল নিটিং, টেক্সটাইল ওয়েট প্রসেসিং, টেক্সটাইল কটন স্পিনিং, টেক্সটাইল মার্কেটিং অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট, টেক্সটাইল মেশিনারিজ, টেক্সটাইল টেস্টিং অ্যান্ড কোয়ালিটি কন্টোল, টেক্সটাইল উল, টেক্সটাইল পলিমার, টেক্সটাইল গার্মেন্ট ম্যানেজমেন্ট, টেক্সটাইল অ্যান্ড কার্পেট, টেক্সটাইল সিনথেটিক ইয়ার্ন, টেক্সটাইল ফিনিশিং, টেক্সটাইল গার্মেন্ট ডিজাইন অ্যান্ড প্যাটার্ন মেকিং টেকনোলজি।

 

খ-গ্রুপ (সিভিল ও আর্কিটেক) : সিভিল, সিভিল (উড), সিভিল ডেকোরেশন, সিভিল কনস্ট্রাকশন, সিভিল জিও টেকনিক্যাল, সিভিল স্টাকচার, এনভায়রলমেন্টাল, সিভিল ট্রান্সপোর্টেশন, সিভিল প্লাম্বিং, মাইনিং অ্যান্ড মাইন সার্ভেয়িং, সার্ভেয়িং, আর্কিটেকচার, ল্যান্ডস্কোপ ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড আর্কিটেকচার, আর্কিটেকচার অ্যান্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইন, আর্কিটেকচার আরবান অ্যান্ড রিজিওনাল প্ল্যানিং, আর্কিটেকচার অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডিজাইন, বিল্ডিং অ্যান্ড কনস্ট্রাকশন ম্যানেজমেন্ট, সিভিল ওয়াটার রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট, রিয়েল এস্টেট ম্যানেজমেন্ট টেকনোলজি।

 

গ-গ্রুপ (ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স) : মাইক্রো ইলেকট্রনিকস, সোলার, ইলেকট্রিক্যাল প্রোডাক্ট ম্যানুফ্যাকচারিং, ইলেকট্রনিকস, অটোমোশন অ্যান্ড রোবটিক, পাওয়ার ইলেকট্রনিকস, মোবাইল, ইলেকট্রনিকস প্রোডাক্ট ম্যানুফ্যাকচারিং, ইলেকট্রো মেডিকেল টেকনোলজি।

 

ঘ-গ্রুপ (মেকানিক্যাল) : ইন্সট্রুমেন্ট অ্যান্ড প্রসেস কন্টোল, মেকানিক্যাল, প্লাস্টিক অ্যান্ড পলিমার, পাওয়ার, ফ্রিজ অ্যান্ড এয়ারকন্ডিশন, অটোমোবাইল, অটোমোবাইল ডিজাইন, অটোমোবাইল বডি বিল্ডিং, পাওয়ার প্লান্ট ম্যানেজমেন্ট, প্রোডাক্ট ডিজাইন অ্যান্ড ইনভেনশন, রেলওয়ে ট্রান্সপোর্টেশন, মেকাট্রনিকস, মেট্রালজিক্যাল, মেটাল প্রোডাক্ট ম্যানুফ্যাকচারিং, প্রোডাকশন অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল, রেলওয়ে বডি বিল্ডিং, ওয়েল্ডিং অ্যান্ড শিট মেটাল টেকনোলজি।

 

ঙ-গ্রুপ (আইটি) : লাইব্রেরি অ্যান্ড ইনফরমেশন, কম্পিউটার, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি, ডেটা টেলিকমিনিউকেশন, ডেটা টেলিকমিনিউকেশন অ্যান্ড নেটওয়ার্কিং, কম্পিউটার নেটওয়ার্কিং, কম্পিউটার সফটওয়্যার ডিজাইন, টেলিকমিউনিকিশন, কম্পিউটার ওয়েভ ডিজাইনিং, কম্পিউটার ই-কমার্স, কম্পিউটার সাইবার সিকিউরিটি, কম্পিউটার হার্ডওয়্যার, কম্পিউটার গ্রাফিকস ডিজাইন টেকনোলজি।

 

চ-গ্রুপ (ফ্লিম অ্যান্ড মিডিয়া) : অডিও অ্যান্ড সাউন্ড, ফ্লিম মেকিং অ্যান্ড এনিমেশন, এডভারটাইজিং অ্যান্ড পাবলিকরিলেশন, মাসকমিউনিকেশন, মাল্টিমিডিয়া অ্যান্ড ওয়েভ ডিজাইন, মোশন গ্রাফিকস অ্যান্ড ব্রডকাস্টিং, ডিজিটাল মিডিয়া ডিজাইন, আর্টস অ্যান্ড ক্রাফট, ডিজিটাল ভিজ্যুয়াল এফেক্ট, সিনেমাটোগ্রাফি টেকনোলজি।

 

ছ-গ্রুপ (মেরিন) : মেরিন কোস্টাল এরিয়া ম্যানেজমেন্ট, মেরিন শিপবিল্ডিং, মেরিন শিপবিল্ডিং অ্যান্ড ডিজমান্টলিং, মেরিন পোর্ট ম্যানেজমেন্ট, মেরিন ইনল্যান্ড ওয়াটার ওয়েজ ট্রান্সপোর্টেশন, মেরি ইন্টার ন্যাশনাল ওয়াটার ওয়েজ ট্রান্সপোর্টেশন, মেরিন শিপ আর্কিটেক, মেরিন ফিশারিজ, মেরিন ওসানোগ্রাফি, মেরিন ল, মেরিন বোট বিল্ডিং অ্যান্ড রেসটোরেশন টেকনোলজি।

 

জ-গ্রুপ (বিমান) : এয়ারকার্গো অ্যান্ড কুরিয়ার ম্যানেজমেন্ট, এয়ার এরোস্পেস, এয়ার এভিয়েশন, এয়ারলাইন এডমিনিস্ট্রেশন, এয়ারলাইনস ম্যানেজমেন্ট, এয়ার ক্রাফট বডি বিল্ডিং, এয়ার এরোনেটিক্যাল, এরোস্পেস ইলেকট্রনিকস, এভিয়েশন অ্যান্ড ট্রাভেল ট্যুরিজম, এয়ার হোস্টেজ টেকনোলজি।

 

ঝ-গ্রুপ (কেমিক্যাল) : ফুড অ্যান্ড বায়োকেমিক্যাল, কেমিক্যাল অ্যান্ড বায়োমোলিকোলার, পেট্রোলিয়াম, পেট্রো কেমিক্যাল, গ্যাস অ্যান্ড এপ্লাইড পেট্রোলিয়াম, কেমিক্যাল সারেপেস কোটিং, কেমিক্যাল, ফুড, ফুড প্রসেসিং অ্যান্ড প্রিজারভেশন, ফুড বেকিং, ফুড অ্যান্ড বেভারেজ প্রোডাক্ট ম্যানুফ্যাকচারিং, টয়লেট্রিজ প্রোডাক্ট ম্যানুফ্যাকচারিং, ক্লিন অ্যান্ড ফার্নেস, ফার্টিলাইজার, রাবার, পেইন্ট, রিফাইনারি পেট্রোলিয়াম, পেপার অ্যান্ড পেপার প্রোডাক্ট, সিরামিক, গ্লাস, মেলামাইন ও সিমেন্ট টেকনোলজি।

 

ঞ-গ্রুপ (লেদার) : লেদারট্যানিং, লেদার প্রোডাক্ট, লেদার ফুটওয়্যার, লেদার মার্কেটিং অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট, লেদার ডিজাইন টেকনোলজি।

 

ট-গ্রুপ (ট্যুরিজম) : বার অ্যান্ড বেভারেজ, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট, ট্যুর অ্যান্ড ট্রাভেল ম্যানেজমেন্ট, হোটেল ম্যানেজমেন্ট, হাউজকিপিং টেকনোলজি।

 

ঠ-গ্রুপ (বিবিধ) : অপসেট প্রিন্টিং, গ্রাফিকস ডিজাইন টেকনোলজি। উল্লিখিত গ্রুপগুলোর মধ্য থেকে কমপক্ষে ১টি টেকনোলজি সরকারি পলিটেকনিকগুলো চালু করা প্রয়োজন। এসব কোর্সগুলো ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং (টেক্সটাইল অ্যাপারাল ম্যানুফাকচারিং টেকনোলজি) পরিচিত হবে অর্থাৎ প্রতিটি টেকনোলজির আগে খাতের নাম লিখতে হবে এবং সরকারি-বেসরকারি পলিটেকনিক, টেক্সটাইল, মেরিন, আর্মি, নেভাল, কম্পিউটার, গ্লাস ও সিরামিক, অ্যারোনেটিক, ট্যুরিজম, লেদার, গ্রাফিকস প্রিন্টিং ইনস্টিটিউটে পরিচালিত হবে।

 

উ.ঞবপয কারিকুলামে যেসব বিভাগ থাকেব, তা হলো ক-গ্রুপ : এগ্রো ফ্রুট সায়েন্স, এগ্রো মোলি কুলার বায়ো, এগ্রো টিস্যু কালচার, এগ্রো ক্রোপ ফিজিওলজি, এগ্রো ভেজিটেবল প্রোডাকশন, এগ্রো ফ্লোরি কালচার অ্যান্ড ল্যান্ডস্কেপ গার্ডেনিং, এগ্রো ইকোনমিকস, এগ্রো হর্টিকালচার, এগ্রো রুরাল স্টাডিজ টেকনোলজি।

 

খ-গ্রুপ : এগ্রো মেশিনারি, এগ্রো ইরিগেশন অ্যান্ড ওয়াটার ম্যানেজমেন্ট, এগ্রো ফুড প্রসেসিং, এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ টেকনোলজি, গ-গ্রুপ : ফরেস্ট্রি, ফরেস্ট্রি ট্রি ইনপ্রুভমেন্ট অ্যান্ড জেনেটিক, ফরেস্ট উড সিজনিং, ফরেস্ট ম্যানেজমেন্ট, ফরেস্ট ওয়াইল্ড লাইফ ম্যানেজমেন্ট, ফরেস্ট পলিসি অ্যান্ড ল, ফরেস্ট ইকোলজি, ফরেস্ট উড প্রোডাক্ট টেকনোলজি।

 

ঘ-গ্রুপ : ফিস কালচার, ফিস ব্রিডিং, মেরি কালচার, ফিস ক্যাপচার, একুয়া কালচার, ফিস ইকোনমিক অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট টেকনোলজি, ঙ-গ্রুপ : পোলট্রি হাজবেন্ডারি, এনিমেল হেলথ, এনিমেল হাসবেন্ডারি, পোলট্রি ম্যানেজমেন্ট, ভেটেনারি, ডেইরি, ডেইরি অ্যান্ড ফুড টেকনোলজি। এসব কোর্স সরকারি ও বেসরকারি কৃষি, ফিশারিজ, লাইভস্টক, ফরেস্ট্রি, ভেটেনারি ইনস্টিটিউটে পরিচালিত হবে। উল্লিখিত উ.ঊহম, উ.ঞবপয, উ.ঊফঁ (ভোকেশনাল/টেকনিক্যাল) ও প্রফেশনাল ডিপ্লোমা কোর্স নিয়ে যদি বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি শিক্ষা বোর্ড স্থাপন করা যায়, তবে দক্ষ মানসম্পন্ন মধ্যম স্তরের প্রকৌশলী ও প্রযুক্তিবিদ তৈরি করা সম্ভব হবে বলেই আমাদের ধারণা।

 

লেখক : প্রকৌশলী রিপন কুমার দাস
ট্রেড ইনস্ট্রাক্টর
ডোনাভান মাধ্যমিক বিদ্যালয়, পটুয়াখালী
ripan.edu48@gmail.com

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © polytechnicbarta.com
Theme Customized BY LatestNews