1. news.polytechnicbarta@gmail.com : admin :
  2. contact.mdrakib@gmail.com : Rakib Howlader : Rakib Howlader
  3. tanjid.fmphs@gmail.com : Tanjid : Tanjid
শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৪:১২ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
শিক্ষার্থীদের কারিগরি ও প্রযুক্তিগত দিকে দক্ষ হতে হবে : শিক্ষা উপমন্ত্রী ফুটবল জাদুকর ম্যারাডোনা আর নেই পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের মাস-খানেকের মধ্যেই পরীক্ষা নেওয়া হবে – শিক্ষামন্ত্রী বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের অধীন বস্ত্র অধিদপ্তরের জুনিয়র ইন্সট্রাক্টর পদের লিখিত পরীক্ষার সময়সূচি এসএসসির ৭৫ ও জেএসসির ২৫ শতাংশে এইচএসসির ফল ১২টায় শিক্ষামন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন, আসতে পারে যে সিদ্ধান্ত ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষাক্রমের ১ম ও ৩য় পর্ব পরিপূরক পরিবর্তিত পরীক্ষার সময়সূচি মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করতে ‘স্ট্রং পানিশমেন্টে’ যাবে সরকার প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বসুন্ধরা গ্রুপে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

আসুন জেনে নেই NTVQF Level সম্পর্কে

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম সোমবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৯
  • ১১২৬ বার পঠিত

লেখক তৌহিদুজ্জামান তৌহিদ:  অনেকের মনের প্রশ্ন হলো NTVQF কী?

– NTVQF এর পূর্ণরূপ হলঃ National Technical & Vocational Qualification Framework (NTVQF).
এর মোট 6 টি লেভেল রয়েছে। যথাঃ Level-1 – Level-6 এবং সাথে সংযুক্ত আছে, Pre- Voc 1, Pre- Voc 2.

* কারা করতে পারবে?
– সবাই করতে পারবে….
যে যেই বিষয়ে কাজ জানে সে সেই বিষয়েই করতে পারবে। আর এজন্য তার কোন নির্দিষ্ট শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকতে হবে এমন নয়, তার কাজের যন্ত্রপাতির নাম বলতে ও লিখতে পারলেই হবে, তবে এটুকুও যদি কেউ না জানেন তবে তাকে Level- এর আগে Pre-1, 2 করে নিতে হবে। এখানে অক্ষর জ্ঞান ও লিখা সম্পর্কে শিখানো হয়।
যারা লিখতে+পড়তে পারেন এবং আপনি কোন কাজের উপর দক্ষ তাহলেই আপনি Level-1 এ অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

যেই যেই বিষয়ে Level গুলো হয়ে থাকে কয়েকটির উদাহরণঃ
১. সিভিল (মেসন, রড বাইন্ডিং, প্লাম্বিং)
২. Electrical (EIM).
৩. IT (Computer all).
৪. Food.
৫. Wood working.
৬. Mechanical (Machine tools)
৭. Automobile.
৮. Tourism & Hospitality.
৯. Transport ইত্যাদি।

বর্তমানে বাংলাদেশে Level-4 (Skill) পর্যন্ত হচ্ছে, তবে সবগুলোতে নয়। যেমন ইলেকট্রিক্যাল এ Level- 4 হচ্ছে।

কীভাবে করবেন?
– RRECOGNITION OF PRIOR LEARNING (RPL) এর মাধ্যমে করবেন। এর মানে হলো বাংলদেশে অনেক মানুষ অাছে যারা কাজ জানেন তাদের কোন সার্টিফিকেট নেই তাদেরকে সার্টিফিকেট প্রদান করাই RPL এর উদ্দেশ্য।

* কোথায় করবেন?
– REGISTERED TRAINING ORGANISATION (RTO) প্রতিষ্ঠানে আপনি Level গুলো করতে পারবেন।
এর জন্য বাংলাদেশে অনেক RTO প্রতিষ্ঠানে রয়েছে যেমনঃ BKTTC Dhaka, BKTTC Chittagong, SAIC, UCEP. এছাড়াও সরকারি-বেসরকারি আরো অনেক প্রতিষ্ঠান রয়েছে।
অাপনি উক্ত প্রতিষ্ঠান গুলোতে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করবেন যখন শুরু হবে তখন আপনাকে জানাবে, তারপর আপনি এসে দুইদিন কাজের প্র্যাকটিস করার সুযোগ পাবেন, কোন ভুল থাকলে প্রশিক্ষক তা আপনাকে বুঝিয়ে দিবেন। তৃতীয় দিন Assessment (মূল্যায়ন) করা হবে, প্রথমে লিখিত, প্র্যাকটিক্যাল তারপর মৌখিক। তার কিছুক্ষণ পরেই আপনার ফলাফল জানিয়ে দেওয়া হবে।
আর এই পুরু বিষয়টাই মূল্যায়ন করে থাকেন কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের একজন Assessor এবং একজন বোর্ড প্রতিনিধি। কারিগরি শিক্ষাবোর্ড কতৃক সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়ে থাকে।

* ASSESSOR কি/ কিভাবে হবেন?
– Assessor হচ্ছেন পরিক্ষক/ মূল্যায়নকারী। যারা Level এর পরীক্ষাগুলো মূল্যায়ন করে থাকেন।
আপনিও একজন Assessor হতে পারবেন, যদি কোন বিষয়ে আপনি Level- 1 করে থাকেন তাহলে আপনি Level-4 (Assessor Part) এ অংশগ্রহণ করে Assessor হতে পারবেন।
এর জন্য আপনাকে কমপক্ষে ৬ দিন ট্রেনিং করতে হবে, তারপর আপনাকে আমার Assessment দিয়ে Competent (উত্তীর্ণ) হতে হবে।
তাহলেই আপনি একজন Assessor এবং আপনাকে বোর্ড Assessor হিসেবে পাঠাবে ( আপনাকে সম্মানী প্রদান করবে)।
Competency Based Training & Assessment (CBT&A). Level- 4 এর মোট ১২ টি Module আছে Assessor Part এর জন্য ৪ টি।
আর যারা Trainer হতে চান তাদের বাকী ৭ টি Module সম্পন্ন করার জন্য আবার ৯ দিনের ট্রেনিং সম্পন্ন করে আবার Assessment দিতে হয় এবং উত্তীর্ণ হতে পারলে আপনি একজন ট্রেইনার।

* কতো টাকা খরচ হয়?
– Level-1, Level-2, Level-3 এগুলো কিছু দিন আগেও STEP Project এর মাধ্যমে ফ্রি হয়েছে এবং যারা সম্পন্ন করেছে তাদেরকে তারা ভাতাও দিয়েছে, তবে অনেকদিন যাবৎ এসব বন্ধ রয়েছে তাই নিজে ২৫০০-৩০০০ টাকা খরচ করে প্রত্যেকটি Level সম্পন্ন করতে হয়। Assessor Part এর জন্য ৭০০০- ৮০০০ টাকা খরচ করতে হয়। তবে বর্তমানে আবার কিছু প্রতিষ্ঠানে মাঝে মধ্যে ফ্রি হচ্ছে (Project). তবে সেটা খুব কম।

* কেন করবো?
– বর্তমানে কোন প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউট এ চাকুরী করার পূর্ব শর্ত উক্ত Level গুলো থাকা, এবং শিল্পকারখানাতেও জরুরী।

দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পূর্বশর্ত দক্ষ জনশক্তি তাই Level গুলোর মাধ্যমে আপনার দক্ষতার মূল্যায়ন পাবেন তাই আর দেরি নয় সবাই Level গুলো সম্পন্ন করে ফেলুন।

মোঃ তৌহিদুজ্জামান,
জুনিয়র ইন্সট্রাক্টর (ইলেকট্রিক্যাল)
অ্যাসেসর, বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড।

নিউজটি শেয়ার করুন

One thought on "আসুন জেনে নেই NTVQF Level সম্পর্কে"

  1. Pollob Kumer gosh says:

    খুবই ভাল সুযোগ। ময়মনসিংহের ভিতর কোথাও করা যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © polytechnicbarta.com
Theme Customized BY LatestNews