1. news.polytechnicbarta@gmail.com : admin :
  2. mdrakibbpi@gmail.com : Rakib Howlader : Rakib Howlader
  3. tanjid.fmphs@gmail.com : Tanjid : Tanjid
বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ

সোস্যাল মিডিয়ার ব্যবহার ও কমন মিসটেক

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২০
  • ৩০৬ বার পঠিত

ব্যবহারকারী বিবেচনায় বিশ্বের শীর্ষ সোস্যাল মিডিয়া ফেসবুক ব্যবহারে পিছিয়ে নেই বাংলাদেশ। অতি সহজ ব্যবহারের ফলে ডাক্তার,ইঞ্জিনিয়ার, ছাত্র-শিক্ষক, রিক্সাওয়ালা, কাজের বুয়া থেকে শুরু করে সকল শ্রেণী/পেশার মানুষ এখন ফেসবুক গ্রাহক। দেশের ৭ কোটি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর মধ্যে প্রায় ২ কোটি ৯০ লাখ ফেসবুক গ্রাহক রয়েছে। তবে ফেসবুকের ব্যবহারে কিছু কমন মিসটেক লক্ষ্য করা যায় যা অনেক শিক্ষিত লোকেরাও প্রতিনিয়ত করে যাচ্ছে। আজ এ বিষয়ে কিছু লিখতে ইচ্ছে হলো যদি আপনার ভিতর এধরনের কোন মিসটেক লক্ষ্য করেন তাহলে আশাকরব সেগুলো এড়িয়ে চলবেন।

🔴 একাউন্ট নেম/ইউজার নেম:
ফেসবুকে ছদ্মনাম ব্যবহার করা নতুন কিছু নয়।ইলেকট্রন,প্রোটন, নিউটন,আবেগী মন, অবুঝ মন, সাইবার তমুক, নীল নক্ষত্র, ভোরের পাখি, সুখ পাখি, অচিন পাখি ইত্যাদি কত রং বেরংয়ের নাম। আমরা এটাকে খুব সাধারণভাবে দেখলেও এটা বড় ধরনের বোকামি ছাড়া কিছুই নয়। চাকুরির জন্য অফিসে গিয়ে ভাইভা দেয়ার দিন অদূর ভবিষ্যতে শেষ হয়ে যাবে।একটা ভিডিও সিভি সেই সাথে আপনার ফেসবুক প্রোফাইল দেখে খুব সহজেই আপনার স্কিল, আপনার ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে মূল্যায়ন করা সম্ভব। সেখানে আপনার প্রোফাইলে ইন করতেই আপনি অযোগ্যদের কাতারে বিবেচিত হতে পারেন।আপনার নাম যেমনই হোক প্রোফাইলে নিজ আইডেন্টিটি ঠিক রাখুন।

🔵 রিঅ্যাকশন বা প্রতিক্রিয়া:
ফেসবুকে বর্তমানে ৬ ধরনের রিঅ্যাকশন দেয়া যায়। কিছুদিন আগেও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি পোস্টে হাসির রিঅ্যাকশন দিয়ে বড় ধরনের গন্ডগোল সৃষ্টির বিষয়টি ভাইরাল হয়েছে।পোস্টের ধরন বুঝে প্রতিক্রিয়া জানানোটা আপনার ম্যাচুউরিটি প্রকাশ করে।প্রায়ই লক্ষ্য করি কারো মৃত্যু সংবাদেও লাইক ও লাভ রিঅ্যাক্ট। পোস্টের যথার্থ মূল্যায়ন করতে না পারলে রিঅ্যাক্ট করা থেকে বিরত থাকুন।

🔴 প্রোফাইল লক:
আমার ফ্রেন্ডলিস্টের অনেকেই দেখেছি প্রোফাইল লক করা অবস্থায় তাদেরকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠানোতে বিরক্তিকর স্ট্যাটাস দেন।বিরক্ত হওয়াটা কি স্বাভাবিক নয়? আপনি একজনের সাথে এড হতে চাচ্ছেন কিন্তু তাকে আপনার সম্পর্কে জানার সুযোগই দিচ্ছেন না তাহলে কেন সে আপনাকে এক্সেপ্ট করবে!!
একটা নতুন ফিচার আসছে তাই বলে সেটার মূল কাজ সম্পর্কে না জেনেই এপ্লাই করতে হবে?নতুন কোন ফ্রেন্ড আপনার প্রয়োজন নাই, ওকে আপনি লক করতে পারেন।

🔵 Work at/ Studying at:
ফেসবুক প্রোফাইল ঘুরলে work at Facebook, Work at বাবার হোটেলে খাই, Work at Student of the year আবার Studying at অক্সফোর্ড/হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় ইত্যাদি কমন পড়বেই। এমনকি বিশ্ববিদ্যালয় লেভেলে পড়ুয়া অনেকেই আছেন যারা ঠিকমতো নিজ কলেজ/বিশ্ববিদ্যালয়/সাবজেক্ট টা পর্যন্ত প্রোফাইলে যুক্ত করতে পারে না অন্যদের কথা তো বাদই দিলাম।
এগুলো আজই ঠিক করে নিন কারণ এটা আপনার আইডেন্টিটি।ভাল কোন অর্জন থাকলে সেটাও যুক্ত করে প্রোফাইল সমৃদ্ধ করতে পারেন।

🔴 অডিয়েন্স সিলেকশন:
আমার কাছে সোস্যাল মিডিয়া হলো সবথেকে বড় পাবলিক প্লেস।কারণ আপনার সাথে এখানে আপনার শিক্ষক-ছাত্র, আত্মীয় স্বজন, বন্ধুবান্ধব, সিনিয়র-জুনিয়র সবধরনের মানুষ কানেক্টেড।একটা কিছু পোস্ট করার আগে অবশ্যই ভাবুন এটি চৌরাস্তায় দাড়িয়ে আপনি বলতে পারেন কিনা!
তাহলে কি আপনি স্বাধীনভাবে ফেসবুকে পোস্ট করতে পারবেন না?হ্যা অবশ্যই পারবেন তবে সেক্ষেত্রে আপনাকে একটু কৌশলী হতে হবে। আপনি যখন কোন কিছু পোস্ট করার জন্য টাইপ করেন তখন আপনার নামের নিচে অডিয়েন্স সিলেকশন করার জন্য ছোট করে লেখা থাকে পাবলিক/ফ্রেন্ডস/কাস্টম ইত্যাদি।
সেখানে ক্লিক করে সহজেই নির্ধারণ করতে পারেন আপনার অডিয়েন্স।

🔵 প্রোফাইল পিকচার:
আপনি দেখতে সুন্দর না এজন্য আপনার প্রোফাইলে নিজের ছবি শেয়ার করেন না (মেয়েদের ক্ষেত্রে) ঠিক আছে। কিন্তু ছেলেদের ক্ষেত্রে একটা কথা প্রচলিত আছে ‘সোনার আংটি বাঁকাও ভালো‘ সেটা তো নিশ্চয়ই জানেন! এই পৃথিবীতে আপনিই অন পিস আর আল্লাহ আপনাকে আপনার মতো করেই সৃষ্টি করেছেন।মনে রাখবেন আপনাকে মানুষ গ্রহণ করবে আপনার গুনের জন্য চেহারার জন্য নয়!
আবার কখনো কখনো একটি কমন ছবি একাধিক মানুষ প্রোফাইল পিকচার হিসেবে ব্যবহারের ফলে বিড়ম্বনাও পোহাতে হয়।
কাজেই নিজ আইডেন্টিটির স্বার্থে প্রোফাইলে নিজের ছবিই ব্যবহার করুন।

🔴 ভাষার ব্যবহার ও বানানে সতর্কতা:
পোস্টে আপনার ব্যবহৃত ভাষা আপনার সম্পর্কে ইতিবাচক/নেতিবাচক ধারণা তৈরীতে প্রভাবক হিসেবে কাজ করে।আবার বানানের ক্ষেত্রেও চরম উদাসীনতা লক্ষ্য করা যায়। যেমন: ছাত্র/ছাত্রী লিখতে গিয়ে ছাএ/ছাএী লেখা ‘য়‘ এবং ‘ই‘ এর গোলযোগ তো সচরাচর দেখতেই পান।
অনেক সময় নিয়ে একটা পোস্ট লিখেছেন আরেকটু সময় নিয়ে বানানটা দেখে নিলে তো খুব বেশি ক্ষতি হয় না।

🔵 কমেন্টের রিপ্লাই:
ফেসবুকের আপডেট ফিচার অনুযায়ী কমেন্টের রিপ্লাই দেয়ার সময় অটোমেটিক মেনশন হয়ে যায়। যাকে রিপ্লাই দিচ্ছি সে আপনার সিনিয়র বা শ্রদ্ধাভাজন কেউ হলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে কোন সম্বোধন ছাড়াই কথা বলা হয়। যারা এ বিষয়টি লক্ষ্য করে তাদের কাছে কিন্তু নিজের অজান্তেই অবস্থানের অবনতি ঘটে। এ বিষয়টিকে গুরুত্ব দেওয়া উচিত।

সবাইকে ধন্যবাদ। হ্যাপি ফেসবুকিং…🙂

✍️ ইয়াছির আরাফাত
পরিচালক, সফটম্যাক্স অনলাইন স্কুল

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © polytechnicbarta.com
Theme Customized BY LatestNews